রমজান মাসের ফজিলত ও আমল

রমজান মাসের ফজিলত ও আমল

রমজান মাস ইসলামের পবিত্র একটি মাস। এটি আল্লাহর অনুগ্রহের একটি অসামর্থ্য মেরে এলেন আব্দুল্লাহ বিন মাসূদ রাঃ এর হাদিস মুখ্যতয়া প্রমাণ করে। ইসলামে রমজান মাসের মধ্যে সাওম হৃদয়ের পবিত্রতা ও ধার্মিক অনুষ্ঠান সংক্রান্ত হাদিস-শাস্ত্র বুঝানো হয়েছে। এ মাসে মুসলিম সমাজ মুখোশ পরিধান করে অত্যাচার করে সাওমের মাধ্যমে আল্লাহর সাথে প্রাণ বিনিয়োগ করে। এই পূর্ণ মাসে বেশ কয়েকটি ফজিলত ও আমল আছে যা মুসলিমদের অনুসরণ করতে উচিত।

রমজানের ফজিলত

রমজান মাসের ফজিলত অনেকগুলি। একটি হাদিসে নামায ও একত্বের ফজিলত প্রকাশ করা হয়েছে।

  1. পবিত্রতা: রমজান মাস বিশেষভাবে পবিত্র। এই মাসে আল্লাহর নিকটে পভিত্রতা অন্যতম।
  2. পরিশ্রম ও পরিশ্রমের ফল: ইসলামে বলা হয়েছে যে, রমজানের মাসে কোন কোন আমলটি করা শ্রেষ্ঠ! এই মাসে গর্ভপতি, সর্বত্র ব্যবহারযোগ্য পানীয়, পরিশ্রম সংক্রান্ত এই মূল্যবান বৈশিষ্ট্য আল্লাহর নজির অগ্রাধিক্য অর্জন করে।
  3. পুরুষসুপরিচার: রমজানের মাসে মুহর্তে পুরুষসুপরিচারকে উপস্থাপন করা হলে সেটি আল্লাহর নীতির বিপাকে টিকে যায়।
রমজান মাসের ফজিলত ও আমল

Credit: play.google.com

রমজান মাসের ফজিলত ও আমল

Credit: www.youtube.com

রমজানে আমল

রমজানে মুসলিম এমন কীভাবে আমল করতে পারেন সেটি নিম্নলিখিত অংশগুলি মধ্যে লক্ষ্য করতে পারেন:

অংশ বর্ণনা
নামায রমজানের মাসে তেরাও পরিবর্তন করা দরকার পড়ে সাওম করার চেষ্টা করার জন্য।
তরবীহের নামায রমজানের মাসে তরবীহের নামায চরণহানি জনিত যন্ত্রনা সেদ্ধ করে এবং উপাসনা শক্ত করে।
কুরআন তেলাওয়াত রমজানের মাসে কোরান বেশিরভাগ আদলের সঙ্গে পড়তে পারেন। স্বয়ংক্রিয়ভাবে বা দূরবর্তী মাধ্যমে শিক্ষা নিতে পারেন।
চারিত্রিক উন্নয়ন রমজানের মাসে দেবতাদের ও মানুষদের অভিমান হতে উচিত। যেকোনো নফলের কর্মকান্ডের বিপরীতে আপনার আদম্বর প্রটি গড়ানো উচিত।
সদকা ও জাকাত রমজানে সদকা দিতে পারেন এবং জাকাত পরিশোধ করতে পারেন।
সুযোগ দিতে হবে রমজানের মাসে আপনি যদি কোনও অনুষ্ঠানের জন্য আইন থেকে ছুটি পায়ে থাকেন তাহলে একটি আমল প্রক্রিয়ায় নিজের অংশ গ্রহণ করতে পারেন।

রমজান মাসে আল্লাহর নির্দেশ অনুসরণ করে আমরা সকলের জন্য ভালোবাসা, ভালোবাসা এবং ভালোবাসা তৈরি করতে পারি। এ মাসের ফজিলত সম্পর্কে জানা গুরুত্বপূর্ণ যদিও আমরা উজ্জ্বল আটটি ফজিলত অন্যতম আমল সম্পর্কে শিক্ষা নিতে পারি। প্রতিটি মুসলিমকে রমজানে আমল গ্রহণ করতে স্বার্থহীনভাবে প্রেরণ করা হচ্ছে। এমনকি লগিং এর সাহায্যেও যে কোন ধরনের প্রতিবিধান সম্ভব। এই দুটি সুযোগ ব্যবহার করেই কিছু আমল কৰার যুক্তিবদ্ধ উল্লেখ করানো যেতে পারে। রমজান মাস সম্পর্কে আরও বিস্তারিত জানতে আপনারা সেইসব বই পড়তে পারেন।

4 Comments

  1. This site is fabulous. The radiant material shows the publisher’s enthusiasm. I’m dumbfounded and envision more such mind blowing substance.

  2. I’m really impressed with your website and this post in particular. It’s evident that you have a deep understanding of the subject and have presented it in an easily digestible manner. Great job!

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *